ফেসবুক পেইজ মনিটাইজ করার ৩টি সহজ ধাপ

ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) করে ইউটিউবের চেয়ে বেশি অর্থোপার্জন করা যায়। ইউটিউব ক্রিয়েটরদের যত শতাংশ পেমেন্ট করেন তার চেয়ে বেশি ফেসবুকে পেমেন্ট করে থাকেন। আমি নিজেও ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে অনেকদিন ধরে কাজ করে …

Facebook Page Monetization

ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) করে ইউটিউবের চেয়ে বেশি অর্থোপার্জন করা যায়। ইউটিউব ক্রিয়েটরদের যত শতাংশ পেমেন্ট করেন তার চেয়ে বেশি ফেসবুকে পেমেন্ট করে থাকেন। আমি নিজেও ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে অনেকদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছি। বলা যায় ইউটিউবের চেয়ে ফেসবুকের শর্ত অনেক সহজ। অপর দিকে ফেসবুকের ভিডিও মার্কেটিংয়ের একাধিক উপায় থাকায় সহজে ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন পাওয়া যায়।

সহজ বলতে বিষয়টা এমন না যে, আপনি একটা পেইজ তৈরি করলেন আর ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) দিয়ে দিল৷ আসলে পৃথিবীতে অথোপার্জনের কোনো উপায় সহজ নয়। তবে যারা চেষ্টা করে তারা যা ইচ্ছে তা করে উপার্জন করতে পারেন। সুতরাং আপনিও যদি ফেসবুক পেইজ মনিটাইজ করে উপার্জন করতে চান, তাহলে আজকের লেখাটি আপনার জন্য।

Facebook Page Monetization (2)
Facebook Page Monetization

ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) করার পদ্ধতি:

আপনি যখন শর্ত নিয়ে চিন্তা করবেন, তখন হাজার হাজার শর্ত খোঁজে পাবেন। শর্ত তারাই খোঁজেন যারা কাজের জন্য অযোগ্য। সুতরাং আপনি যদি ক্রিয়েটিভ এবং পরিশ্রমী হয়ে থাকেন, তাহলে সাধারণ কয়েকটি শর্ত পূরণ করে আপনি ফেসবুক থেকে আয় করতে পারেন। চলুন আলোচনা করা যাক, ফেসবুক পেইজ মরিটাইজেশন করার জন্য আপনাকে কাজ করতে হবে তা নিয়ে।

১. দশ হাজার ফলোয়ার সংগ্রহ করা:

ফেসবুকের দেওয়া শর্তানুযায়ী আপনাকে প্রথমে দশ হাজার ফলোয়ার সংগ্রহ করতে হবে। আপনার পেইজে যদি দশ হাজার ফলোয়ার হয়ে যায় তাহলে আপনি ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) পাবেন। তবে দশ হাজার ফলোয়ার ছাড়াও আপনাকে আরও কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। সবার জন্য প্রথম দশ হাজার ফলোয়ার সংগ্রহ করার কাজটা খুবই কঠিন হয়ে থাকে। এজন্যই অনেকেই এই কাজে ব্যর্থ হয়ে থাকে। প্রকৃতপক্ষে আপনি যদি একটু কৌশল অনুসরণ করতে পারেন, তাহলে এটা একদম কঠিন কাজ নয়।

ফলোয়ার পাওয়ার জন্য আপনাকে ফেসবুক মার্কেটিংয়ের বেসিক শিখতে হবে। আপনি যদি বেসিক মার্কেটিং শিখে যান, তাহলে সহজে দশ হাজার ফলোয়ার সংগ্রহ করতে পারবেন। কোয়ালিটি কন্টেন্ট হচ্ছে ফেসবুক মার্কেটিংয়ের পাওয়ার। ফেসবুকে আপনি প্রতিদিন ছোট ছোট কিছু কন্টেন্ট বিভিন্ন গ্রুপের মধ্যে শেয়ার করতে পারেন। গ্রুপ হয়ে দশ হাজার ফলোয়ার সংগ্রহ করার উপযুক্ত প্লাটফর্ম।

২. নিয়মিত ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড করা:

একটু আগেই বলেছিলাম। কন্টেন্ট হচ্ছে অনলাইন জগতে রাজত্ব করার মূল শক্তি। আপনি যত ভালো কন্টেন্ট তৈরি করতে পারবেন ততই দ্রুত আপনি সফলতা পাবেন। ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন (Facebook Page Monetization) করতে চাইলে আপনাকে তিন মিনিট বা তিন মিনিটের থেকে বড় ভিডিও আপলোড করতে হবে। তিন মিনিটের চেয়ে ছোট ভিডিওগুলোর ভিউ গণনা করা হবে না। সুতরাং ভিডিও ভিউ বৃদ্ধি করতে ও বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য উপযুক্ত করতে প্রতিটি ভিডিও তিন মিনিটের চেয়ে বড় হতে হবে।

৩. ৩ মাসের মধ্যে 600,000 মিনিট ভিডিও দেখতে হবে:

আপনি যে ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড করবেন সেগুলো যখন ভিউয়াররা দেখবে, তখন ভিডিও ওয়াচ টাইম গণনা করা হবে। এক মিনিটের কম সময় দেখা ভিডিওর ওয়াচ টাইম গণনা করা হবে না। যে ভিউয়ার কোনো ভিডিও এক মিনিটের বেশি সময় ধরে দেখবে শুধুমাত্র তার ওয়াচ টাইম গণনা করা হবে। এভাবে আপনাকে ৩ মাসের মধ্যে 600,000 মিনিট ওয়াচ টাইম সংগ্রহ করতে হবে। এভাবেই আপনাকে ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন করতে চাইলে শর্ত সমূহ পূরণ করতে হবে।

কিভাবে বুঝবেন Facebook Page Monetization এর সকল শর্ত পূরণ করেছেন কি-না?

এটা একদম সহজ। আপনি যখন ফেসবুক ক্রিয়েটর পেইজে যাবেন, তখন সবকিছুর এনালাইটিকস দেখতে পাবেন। আপনার সকল বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন হলে অটোমেটিক ফেসবুক আপনাকে মনিটাইজেশন সেট-আপ করার মেসেজ দিবে। ফেসবুকের কাছ থেকে জানানো হলেই আপনি ফেসবুক পেইজ মনিটাইজেশন করে অর্থোপার্জন করতে পারবেন।

কিভাবে উপার্জিত টাকা হাতে পাবেন?

বর্তমানে একাধিক উপায়ে ফেসবুক ক্রিয়েটরদের টাকা প্রদান করে যাচ্ছে। আপনি নিজের দেশের যেকোনো লোকাল বা জাতীয় ব্যাংকের মাধ্যমে উপার্জিত টাকা উঠাতে পারবেন। এবিষয়ে আরো জানার থাকলে কমেন্ট প্রশ্ন করতে থাকুন, আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে।

48 thoughts on “ফেসবুক পেইজ মনিটাইজ করার ৩টি সহজ ধাপ”

    • এখন থেকে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে শুরু করুন.. এখন থেকে ভিডিও আপলোড করে 30,000 মিনিট ওয়াচ টাইম হলেই কাজ হয়ে যাবে!

      Reply
  1. পেইজ প্রমোট করে ১০ হাজার ফলোয়ার নিলে কি মনিটাইজেশন অন হবে??

    Reply
  2. ভাইয়া আমি বুস্ট করে যদি 10 হাজার ফলোয়ার ওয়াজ টাইম সবকিছু কমপ্লিট করি তাহলে কি আমি ফেসবুক থেকে মনিটাইজ পাবো

    Reply
    • ভাইয়া বুস্ট করে আপনি ফলোয়ার বৃদ্ধি করতে পারেন, কিন্তু ওয়াচ টাইম গুলো কাউন্ট হবে না। ওয়াচ টাইম গুলো আপনাকে অর্গানিক পদ্ধতিতে অর্জন করতে হবে।

      Reply
  3. ৩মাসের মধ্যে যদি ৩০০০০মিনিট না হয় তাহলে কি আর হবে না?

    Reply
  4. ভাই ২মাসের মধ্যে কি শুধু ৩০ হাজার ওয়াসটাইম জোগার করা লাগবে নাকি ১০ হাজার ফলোয়ার ও ২ মাসের মধ্যে জোগার করা লাগবে। আর আমি যে রকম ভিডিও তৈরি করে থাকি যদি আপনাকে একবার আমার পেইজের ভিডিও দেখাতে পারতাম তাহলে ভালো হলো। যদি কিছু মনে না করেন তাহলে কি আমি আপনার সাথে ফেজবুকে যোগাযোগ করতে পারি। প্লিজ মেসেজ এর রিপ্লাই দিবেন।

    Reply
    • আপনি আমাকে আমার ফেসবুকে মেসেজ করতে পারেন। ১০ হাজার ফলোয়ার পূর্ণ হওয়ার পর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ওয়াস টাইম সংগ্রহ করতে হবে।

      Reply
      • ২ মাসের মধ্যে যদি ওয়াচ টাইম পূর্ণ না করতে পারি তাহলে কি এই পেজ আর কখনো মনিটাইজশন করতে পারবোনা। দয়া করে একটু জানান ভাই।

        Reply
  5. এখন তো নতুন আপডেট হইছে তাই না ভাই।
    ওয়াচ টাইম হতে হবে ছয় লক্ষ এটা কতোটুকু সত্যি।

    Reply
  6. ভাইয়া একটু হেল্প করুন আমার পার্টনার মনিটাইজেসন ইস্যু সমস্যা এটা কি ভাবে সমাধান করব ?

    Reply
  7. ভাই ওয়াচ টাইম কি শুধু পেজের ভিতিওটাই গননা করা হয়নাকি ওই ভিডিও যেসব গ্রুপে শেয়ার হয়েছে সে সবও গননা করা হয়। প্লিজ ভাইয়া রিপ্লাই দিয়েন

    Reply
    • শুধুমাত্র আপনার পেজে শেয়ার করা ভিডিওগুলো ওয়াচ টাইম কাউন্ট করা হবে। তবে যদি আপনার পেইজে আপলোড করা ভিডিওগুলো আপনি বিভিন্ন পেজে শেয়ার করেন। সে ক্ষেত্রে উক্ত ভিডিও গুলোতে যদি ভিউ আসে, সেগুলো কিন্তু আপনার পেজের ভিউয়ার্স হিসেবে কাউন্ট করা হবে। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই ভিডিওটি আপনার পেজে আপলোড করা থাকতে হবে। আপনি বিভিন্ন গ্রুপে আপনার পেজে আপলোড করা ভিডিওটির লিংক শেয়ার করতে পারবেন। লিংক শেয়ার করলে এখান থেকে যে ভিউজ আসবে, সেগুলো ওয়াচ টাইম হিসেবে কাউন্ট করা হবে।

      Reply
  8. ভাইয়া মনিটাইজেশন টুল্স চেক করলে তো সেখানে ৬০০০০০০ লাখ ওয়াচ টাইম হতে হবে দেখায়

    Reply
  9. ভাইয়া ছোট গল্প, লাইফ লাইন এই ধরনের পেজগুলো ভিডিও আপলোড করে না । তারা স্টাটাস পোষ্ট করে । তাহলে এই পেজগুলো কিভাবে টাকা ইনকাম করে? ভাইয়া দয়া করে একটু রিপ্লাই দিয়েন।

    Reply
      • ভাই, স্পনসরশিপ ও ইনেস্ট্যান্ট আর্টিকেল কি,,, একটু বুঝাবেন?
        আর ভালো হয় যদি আপনার ফেসবুক আইডির সাথে এড হয়ে মেসেনজারে কথা বলি

        ফেসবুক আইডির নামটা বলেন

        Reply
        • আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ,
          দ্রুত খবর পড়ার সুবিধা দিতে ফেসবুক নিয়ে এসেছে ‘ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল’। এতে একটি খবরের সঙ্গে বজ্রর মতো চিহ্ন দেওয়া থাকে সে শিরোনাম বা লিংকে শুধু একটা ক্লিক করলেই বজ্র গতিতে ফেসবুকেই পেয়ে যান খবরটি।

          আপনার ওয়েবসাইটে করা পোস্টটি যখন আপনি পেজে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল হিসেবে পোস্ট করবেন তখন সেটি পড়ার জন্য ইউজারদের এমবি খরচ করে নতুন কোনো ট্যাবে বা ব্রাউজারে যেতে হবে না। তবে হ্যাঁ, ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল শুধু স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাই দেখতে পারবেন। বিশ্বের বড় বড় সংবাদমাধ্যম এরই মধ্যে ফেসবুকের ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল ফিচারটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

          মূলত নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ব্যবহারকারীদের আরও বেশি সময় রেখে দেয়া, দ্রুত সাইটে প্রবেশ (লোডিং টাইম), নিউজ সাইটগুলো আরও বেশি ফেসবুকমুখী হওয়া, বিজ্ঞাপনদাতাদের টার্গেট পিপল ধরা এবং ওয়েবসাইটের মালিকদের সঙ্গে রেভিনিউ শেয়ার করার জন্য এই ফিচার চালু করেছে ফেসবুক।

          Reply
  10. একই ভিডিও কি একাধিকবার আপলোড করা যাবে?

    Reply
  11. যদি আমার পেইজ এ কপিরাইট আপলোড করা ভিডিও অথবা ছবি পোস্ট করা থাকে তাহলে এইখেত্রে কোনো সমস্যা আছে?থাকলে আমি কি করব?
    দয়া করে রিপ্লাই দিন।

    Reply
  12. ভাইয়া, আপনার স্মার্ট ব্লগার হতে চাই।
    এতো সুন্দর করে সাজিয়ে রেখেছেন ।
    Ads friendly theme . আমারো ইচ্ছা ব্লগিং করে কিছু টাকা উপার্জন করতে । আপনি সাহায্য করবেন ?

    Reply
  13. ভাইয়া পেইজ তৈরি করার ৩ মাসের মধ্যে ওয়াচ টাইম ৬০০,০০০ দেখাতে হবে??
    নাকি ১০০০০ ফলোয়ার হওয়ার পর??

    Reply
      • তাহলে ভাই নিদিষ্ট কোনো সময় নাই যে এই সময়ে মধ্যে মনিটাইজেশন করতে হবে, নাকি এমন কোনো সময় আছে যে ২/৩ মাসের মধ্যে মনিটাইজেশন করতে হবে?
        একটু বিষয় টা বুঝিয়ে বলবেন প্লিজ

        Reply
        • ধন্যবাদ, আমাদের সাথে থাকার জন্য…
          ভাই এমন কোনো সময় নেই, যত বেশি কাজ করবেন তত তাড়াতাড়ি আপনি মনিটাইজেশন পাবেন।

          Reply
  14. ভাইয়া আমি সাধারণ ভয়েস রেকর্ড করে মোটিভেশনাল টাইপের ভিডিও বানাই, এবং বিভিন্ন ছবি দিয়ে স্লাইড শো বানিয়ে ভয়েসরেকর্ড এর টাইটেল লিখে দেই। ভিউ মোটামোটি ভালো হয়। এই ধরণের ভিডিও আপ্লোড করলে কি মনিটাইজ হবে?
    নাকি ফেস ভিডিও করতে হবে?

    Reply
    • ভাইয়া এটা শেষের ১২ মাস হিসেব করবে, মনে করুন আপনি ১৮ মাস ধরে কাজ করতেছেন, হিসেব হবে শেষের ১২ মাস।

      Reply
  15. ভাই বস্ট করে কি ওয়াচ টাইম পূরণ করা যাবে?

    Reply

Leave a Comment