কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব? ফেসবুক সমস্যার সমাধান

ফেসবুক প্রোফাইলে বিভিন্ন সমস্যা হওয়ার পর কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব? এই বিষয়ে অনেকেই আমাদের প্রশ্ন করে থাকেন। আজকের আর্টিকেলটিতে আমরা আপনাদের এই প্রশ্নটির উত্তর দিব। যেন আপনাদের প্রিয় ফেসবুক আইডিটি কখনো নষ্ট হয়ে গেলে আপনারা ফিরে পেতে পারেন। একটা ফেসবুক আইডি বিভিন্ন কারণে নষ্ট হতে পারে। আপনি আইডি কিভাবে ফিরে পাবেন? সেটা নির্ভর করে আপনার আইডিটা কিভাবে নষ্ট হয়েছে? সেটার উপর।

আপনার আইডিটি যখন নষ্ট হবে, তখন আপনি কি ভুল করেছেন? সেগুলো আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে। সেই ভুলগুলো কে ব্যবহার করে আপনার আইডি ঠিক করার সমাধান পাওয়া যাবে। সুতরাং আপনি যদি চান যে, আপনার ফেসবুক আইডি নষ্ট হয়ে গেলে ঠিক করবেন।

এই বিষয়ে যদি আপনি পরিপূর্ণ গাইড জানতে চান, তাহলে আজকের এই লেখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে পারেন। কারণ, আপনার ফেসবুক আইডি ফিরে পাওয়ার সকল সমাধান রয়েছে। আশা করছি, এখান থেকে আপনারা ফেসবুক আইডি ফিরে পাওয়ার সম্পর্কে। তথ্য বহুল কিছু আলোচনা আপনারা জানতে পারবেন।

কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

নিজের ফেসবুক আইডি কিভাবে ফিরে পাব? সেই বিষয়ে জানার আগেই আপনাকে জানতে হবে। কী কী কারণে আপনার ফেসবুক আইডি নষ্ট হতে পারে? যদি আপনি কি কি কারণে ফেসবুক আইডি নষ্ট হয়ে যায়? সে বিষয়গুলো জানতে পারেন, তাহলে পরবর্তীতে আপনি আপনার আইডি নষ্ট হয়ে গেলে। সেই বিষয়ের সমাধান বের করতে পারবেন। এজন্য আমরা প্রথমে আপনাদেরকে ফেসবুক আইডি নষ্ট হওয়ার কিছু কারণ সম্পর্কে বলতে চাই।

Advertisement
কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব সকল সমস্যার সমাধান
কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব

যেন আপনারা পরিপূর্ণভাবে সব কিছুই বুঝতে পারেন। সাধারণত ফেসবুক আইডি নষ্ট হওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে হ্যাক হয়ে যাওয়া। হ্যাকিংয়ের সমস্যায় অনেকেই বেশি পড়ে থাকেন। এজন্য আপনার যদি ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়ে যায়। হ্যাকারদের হাত থেকে ফেসবুক আইডি ফিরে পাওয়ার জন্য কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। কিন্তু আবার হ্যাকিং ছাড়াও আরো বিভিন্ন কারণে আপনার ফেসবুক আইডি নষ্ট হতে পারে।

যেমন আপনি অতিরিক্ত কমেন্ট করলে। অতিরিক্ত লাইক দিলে। ফেসবুকের মধ্যে ফেসবুক স্ট্যাটাস পোস্ট করা অন্যায় এমন কোনো কিছু লিখে পোস্ট করলে। এমন কিছু ভিডিও পোস্ট করলেন। যে ভিডিওটি ফেসবুকের মধ্যে আপলোড করা একদমই ঠিক হবে না। আপনি যদি মেসেঞ্জারে এমন কাউকে অতিরিক্ত বিরক্ত করেন। যার কারণে সে আপনার বিরুদ্ধে রিপোর্ট করলে। এই সমস্ত কারণে আপনি ফেসবুকের মধ্যে আপনার আইডি হারাতে পারেন। অথবা আপনি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ব্লক হয়ে যেতে পারেন।

এক্ষেত্রে আপনি কিভাবে আপনার আইডি ফিরে পাবেন? সে বিষয়ে আমরা সঠিকভাবে আপনাদেরকে গাইড দেব। তবে আমাদের পরামর্শ হচ্ছে, আপনারা কখনো এই ধরনের ভুলগুলো করবেন না। যেগুলো আমরা এখানে আলোচনা করেছি। ইচ্ছা করে আসলে ফেসবুকে এধরনের ভুলগুলো করাটাই অন্যায়।

সুতরাং আপনাদের আইডিটার যেন এরকম সমস্যা না হয়। সেজন্য আপনারা এই ভুল গুলো না করে যদি এড়িয়ে চলেন, তাহলে আর আপনাদের আইডিতে কোন সমস্যা দেখা দিবে না। এবং আইডি কখনো নষ্ট হবে না। ফলে আপনাদের কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব? সে প্রশ্নটি লিখে গুগলে সার্চ করতে হবে না।

Advertisement

ফেসবুক আইডি হ্যাক হলে বোঝার উপায়

কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব? সেই সমাধানটি জানার আগে আপনাকে জানতে হবে। আপনার ফেসবুক আইডিতে কি সমস্যা হয়েছে? আপনার আইডিটি হ্যাকিংয়ের কবলে পড়েছে? নাকি অন্য কোনো সমস্যার কারণে আপনার ফেসবুক আইডি নষ্ট হয়েছে? সেটি আপনাকে জানতে হবে। এক্ষেত্রে আপনি কিভাবে বুঝবেন আপনার আইডি হ্যাক হয়েছে? সেটা আপনাকে বলব। অর্থাৎ ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে কিনা? সেটা বোঝার উপায় আপনাকে বলব।

যার মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন যে, আপনার আইডি হ্যাক হয়েছে কিনা? যদি না হয়, তাহলে কিন্তু আপনি একটু সময় ধৈর্য ধরে বিভিন্ন পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনার আইডি সহজে ফিরে পাবেন। যদি কোনো কারণে কেউ হ্যাক করে ফেলে, তখন আপনাকে সরাসরি ফেসবুকে সাপোর্টের যোগাযোগ করতে হবে। এবং তাদের সাহায্য ছাড়া আপনি আপনার ফেসবুক আইডি ফিরে পাবেন না।

এক্ষেত্রে আপনাকে কি কি কাজ হবে? সে বিষয়ে আমরা সহজ ভাবে আপনাকে ধারণা দেবো। যেন আপনি আপনার আইডিটা সহজে ফিরে পেতে পারেন। এখন যদি আপনার ফেসবুক আইডিটা হ্যাক হয়ে যায়। তাহলে আপনি যখন আপনার ফেসবুক আইডি লগইন করতে যাবেন।

তখন আপনার ফেসবুকের ব্যবহার করা মোবাইল নাম্বার, ইমেইল একাউন্ট, এবং পাসওয়ার্ড মিলবে না। কারণ, ওই সময় যে হ্যাক করেছেন, সে আপনার ফেসবুকের মোবাইল নাম্বার, ইমেইল, এবং পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে ঙঙফেলবেন।

Advertisement

এবং সেই গুলো পরিবর্তন করার ফলে আপনাকে হয়তো এমন মেসেজ দেখাতে পারে যে, আপনার মোবাইল নাম্বার, অথবা ইমেইল আইডি দিয়ে কোনো ফেসবুক খোলা হয় নাই। এর মাধ্যমে বুঝতে পারবেন যে, আপনার একাউন্টটা ইতিমধ্যে হ্যাক করা হয়েছে। এক্ষেত্রে যদি অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে চান, তাহলে কিছু টিপস রয়েছে।

টিপস হচ্ছে,

এক্ষেত্রে আপনি ফেসবুকের ডেভলপারের সাথে যোগাযোগ না করে। আপনি হ্যাক হওয়া ফেসবুক রিকভার করতে পারবেন। যদি এই বিষয়টি জানতে চান, তাহলে লেখাটি পড়তে থাকুন। ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে কিনা? সেটা বুঝার আরেকটি উপায় হচ্ছে। যদি আপনার ফেসবুক আইডি হ্যাক করে ফেলে। তখন হ্যাকার আইডিতে বিভিন্ন ধরনের পোস্ট করতে পারে। যে পোস্ট গুলো আপনি করেননি তা বুঝতে পারবেন।

এই বিষয়গুলো যদি আপনি বুঝতে পারেন, তাহলে বুঝতে হবে আপনার আইডি হ্যাক হয়েছে। আবার অনেক ক্ষেত্রে হ্যাকার আপনার মোবাইল নাম্বার, ইমেইল তথ্য, এবং পাসওয়ার্ড পরিবর্তন না করে। আপনার আইডি পরিচালনা করতে পারে। এক্ষেত্রে হ্যাকার আপনার আইডি থেকে অন্যদের কোনো পোস্টে লাইক কমেন্ট করতে পারে।

ফেসবুক আইডি হ্যাক হলে বোঝার উপায়
ফেসবুক আইডি হ্যাক হলে বোঝার উপায়

যদি আপনি ছাড়া অন্য কেউ আপনার আইডি থেকে লাইক কমেন্ট করতেছে বুঝতে পারবেন। অথবা আপনার মেসেজ আপনার অপরিবর্তে কেউ যদি দেখেন। তখন বুঝতে হবে আপনার ফেসবুক প্রোফাইল অন্য কেউ পরিচালনা করতেছে।

Advertisement

আপনার প্রোফাইল থেকে পোস্টের মধ্যে লাইক, কমেন্ট করেছে। এই বিষয়গুলো যদি আপনি বুঝতে পারেন, তাহলে বুঝতে হবে। আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে। আর যদি অন্যান্য কারণে আপনার অ্যাকাউন্টটি নষ্ট হয়ে থাকে। তার সমাধান আমরা নিচে আলোচনা করব। এবং হ্যাক হওয়া আইডি ফিরে পাবার উপায় আমরা আলোচনা করব। যার মাধ্যমে আপনি সহজেই সমাধান পেয়ে যাবেন আপনার আইডি ফিরে পাওয়ার জন্য।

হ্যাক হওয়ার পর কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

যদি কোন কারণে আপনার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়ে যায়। এক্ষেত্রে আপনার ই-মেইলের মাধ্যমে আপনি রিকভার করতে পারবেন। তবে যদি আপনার ফেসবুকের সাথে ইমেইল যুক্ত করা না থাকে, তাহলে কিন্তু আপনি এই সুবিধা পাবেন না। যদি আপনার ইমেইল যুক্ত করা থাকে। হ্যাকার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ইমেইল রিমুভ করে যকন নতুন একটি একাউন্ট যুক্ত করবেন। তখন আপনার ইমেইল এর মধ্যে একটি লিঙ্ক পাঠানো হবে।

যদি আপনি চান, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টটি পুনরায় রিকভার করতে পারবেন। ইমেইল একাউন্টের মাধ্যমে ফেসবুক একাউন্ট কিভাবে রিকভার করবেন? সে বিষয়ে যদি আপনি বিস্তারিত প্রাক্টিক্যাল ভিডিও চান, তাহলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন। আমরা পরবর্তীতে এখানে একটি প্রাক্টিক্যাল ভিডিও টিউটোরিয়াল যুক্ত করে দিব। যার মাধ্যমে আপনারা আপনাদের হ্যাক হওয়া ফেসবুক আইডি রিকভার করতে পারবেন।

ইমেইল একাউন্টের মাধ্যমে যদি ফেসবুক একাউন্ট রিকভারি করতে না পারেন, তাহলে আপনাকে অন্য পদ্ধতিতে কাজ করতে হবে। এক্ষেত্রে কাজটা একটু জটিল হতে পারে। কিন্তু আপনি যদি সবগুলো তথ্য সঠিকভাবে দিতে পারেন, তাহলে অবশ্যই আপনার অ্যাকাউন্ট আবার পুনরায় রিকভার করতে পারবেন। আমরা একটি ফেসবুক হেল্পলাইন এর লিঙ্ক দিচ্ছি। সেই লিংকে আপনাকে ভিজিট করতে হবে।

Advertisement

লিংকে ভিজিট করার পর আপনার একাউন্ট কি কারণে হ্যাক হয়েছে?

সে বিষয়টি আপনাকে বুঝে শুনেই রিপ্লাই করতে হবে। এখানে লিংকে ক্লিক করার পর। আপনি বিভিন্ন অপশন দেখতে পাবেন। এবং কি কারণে আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে? হ্যাক হওয়ার পর আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল যদি পরিবর্তন করা হয়। তাহলে কি করবেন? এবং পাসওয়ার্ড পরিবর্তন হলে কি করবেন? সে বিষয়ে এখানে দিক নির্দেশনা দেওয়া আছে। আপনাকে আপনার ফেসবুক একাউন্ট যেভাবে হ্যাক হয়েছে।

সেই পদ্ধতিটি অনুসরণ করে সঠিক তথ্য দেওয়ার মাধ্যমে পুনরায় একাউন্ট রিকভার করতে হবে। আপনি এই কাজগুলো করার জন্য আমাদের দেওয়া লিঙ্ক ভিজিট করেন। এটা সরাসরি আপনাকে ফেসবুকের অ্যাকাউন্ট সাপোর্ট অপশনে নিয়ে যাবেন। সেখান থেকে আপনাকে বেস্ট অপশনটা সিলেক্ট করতে হবে।

যেন আপনার একাউন্ট খুব দ্রুত ফিরে পান। যদি আপনার তথ্যগুলো সঠিক ভাবে দিতে ব্যর্থ হন, তাহলে আপনার একাউন্ট চিরতরে ডিলিট করে দেওয়া হতে পারে। অথবা একাউন্টের জন্য তথ্য ভেরিফাই করতে হতে পারে।

যদি আইডেন্টিটি ভেরিফাই করতে বলা হয়, তাহলেও আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে। এক্ষেত্রে আপনি আপনার অ্যাকাউন্টটি খুব দ্রুত ফিরে পাবেন। অর্থাৎ আপনার আইডেনটিটি সম্পর্কে হ্যাকার জানতে পারবে না। যেহেতু আপনার হাতেই আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড থাকবে অথবা জন্ম নিবন্ধন থাকবে। সুতরাং আপনি এগুলো ব্যাবহার করে আপনার আইডি পুনরায় ফিরে পেতে পারবেন।

Advertisement

কেন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিসেবল হয়?

অনেক সময় দেখা যায় আমাদের ফেসবুক আইডি ডিসেবল করে দেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এই ক্ষেত্রে ফেসবুক আইডি ডিসেবল হওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে। যদি আপনার আইডেনটিটি ভেরিফাইয়ের প্রয়োজন হয়। অর্থাৎ ফেসবুক যদি আপনাকে কোন কারণে সন্দেহ করে, তাহলে এনআইডি দিয়ে আপনাকে পুনরায় আইডিটা ভেরিফাই একাউন্ট ভেরিফাই করতে হয়। যদি আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স বা প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করতে পারেন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টটি পুনরায় আপনি ফিরে পাবেন।

এখন আপনাকে কী কারণে ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়েছে? সে বিষয়ে জানতে হবে। তার মধ্যে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সন্দেহ করার পাশাপাশি আপনার কিছু ভুলের কারণেও ফেসবুক আইডি ডিসেবল হতে পারে। একাউন্ট নষ্ট হওয়ার আরও যে সকল কারণ রয়েছে।

আমরা ইতিমধ্যে সেই সকল কারণ নিয়ে আলোচনা করেছি। সেই কারণগুলো হচ্ছে আপনি যদি ফেসবুকের মধ্যে এমন কোনো কর্মকাণ্ড করেন। যেটা ফেসবুক থেকে নিষেধ করা হয়েছে। অথবা আপনি যদি কাউকে মেসেঞ্জার এর মধ্যে হ্যারাসমেন্ট করেন। অথবা কাউকে বিরক্ত বিরক্তি কর প্রদান করেন।

কেন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিসেবল হয়?
কেন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিসেবল হয়?

এক্ষেত্রে আপনার একাউন্টটা ডিলিট করা হতে পারে। পাশাপাশি আপনি যদি ফেসবুকের মধ্যে অতিরিক্ত লাইক, কমেন্ট পোষ্ট করেন। যেটা লিমিট অতিক্রম হয়ে যায়। তাহলে আপনার একাউন্টটা ডিসেবল হয়ে যেতে পারে। সুতরাং এই সকল কার্যক্রম থেকে যদি আমি বিরত থাকেন, তাহলে কখনো আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। আপনার অ্যাকাউন্ট সবসময় সুরক্ষিত থাকবে।

Advertisement

ডিসেবল হওয়ার পরে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

Advertisement

ডিসিবেল হওয়ার পর ফেসবুক আইডি কিভাবে ফিরে পাব? সে বিষয়ে যদি আপনি জানতে চান, তাহলে আমি এখানে সঠিক গাইডলাইন প্রদান করতে চেষ্টা করব। যেন আপনি আপনার একাউন্টে ফিরে পান। এই ক্ষেত্রে আপনার একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার পর দু’টি বিষয় আপনাকে দেখতে হবে। যদি আপনি আপনার আপনার একাউন্টে অতিরিক্ত কার্যক্রমের ফলে একাউন্ট ডিজেবল হয়।

আপনি আপনার ভুলটা স্বীকার করে। আপনার আইডেনটিটি ভেরিফাই করার মাধ্যমে। আপনার একাউন্টটা আপনি ফিরে পেতে পারেন। যদি আপনি এমন কোন কাজ করেন। যেটা আসলে ফেসবুক থেকে অনেক জটিল ভাবে নিষেধ করা হয়েছে। এই ক্ষেত্রে ফেসবুক আপনার একাউন্টটা ফিরিয়ে দিবে না। ফিরিয়ে না দেওয়ার দ্বিতীয় আরেকটা কারণ হচ্ছে, যদি আপনি এর আগে ডিসিবেল হওয়ার পর একাউন্টটা ফিরে পেয়ে থাকেন। এবং পুনরায় যদি একই কারনে আপনার একাউন্টটা আবার হয়ে যায়।

এক্ষেত্রে আপনার দোষ জানার পরেও একাউন্টটা ফিরিয়ে দিবে না। এরকম হলে আপনাকে নতুন আরেকটা নিজের অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। পুরোনো আইডিটা আপনি ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি আপনি নতুন একাউন্ট করার পরেও এরকম খারাপ কাজগুলো করে থাকেন। ফেসবুক যদি কোনভাবে আপনাকে এটা চিহ্নিত করতে পারে। এক্ষেত্রে আপনার প্রোফাইল চিরতরে লক করে দিতে পারে।

অর্থাৎ আপনি পরবর্তীতে আপনার প্রোফাইল পিকচার ব্যবহার করে, যতগুলো একাউন্ট তৈরি করবেন। সবগুলো একাউন্ট ফেসবুক অটোমেটিকলি ডিসেবল করে দিবে। সুতরাং এধরনের কাজ গুলো থেকে যদি আপনি বাঁচতে চান, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট যেন ডিসটাব না হয়। আপনাকে এধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে হবে। এবং ফেসবুকের পলিসি মেনে অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে হবে।

Advertisement

সাময়িকভাবে ফেসবুক একাউন্ট লক করে দেওয়া হলে কি করবেন?

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, যদি আপনার ফেসবুক ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভুল হয়ে থাকে। অথবা আইডিতে যদি আপনার বন্ধু-বান্ধব রিপোর্ট করে থাকে। প্রোফাইলের মধ্যে একাধিক রিপোর্ট করার ফলে। একাউন্টটা সমসাময়িক এর জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। অর্থাৎ আপনাকে এই ক্ষেত্রে তিন থেকে চারদিন অথবা পাঁচ থেকে দশ দিন সময়ের জন্য সাময়িক ব্লক দেওয়া হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনার একাউন্টটা নির্দিষ্ট সময় পর আবার ব্লক ওপেন করে দেওয়া হবে।

আপনার ফেসবুকের বন্ধু বান্ধব যদি আপনার প্রোফাইলে কোন রিপোর্ট না করে। অথবা আপনি যদি এরকম কোন পোস্ট ফেসবুকের মধ্যে শেয়ার না করেন। যেটা মানুষের জন্য ক্ষতিকর। অথবা কোন সম্প্রদায় কে ছোট করে যদি কোনো পোস্ট না করেন। তাহলে আপনার একাউন্টের কোন সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এক্ষেত্রে যদি উপরোক্ত কাজগুলো আপনি করে থাকেন, তাহলে অবশ্যই আপনার একাউন্টে সাময়িকভাবে ব্যান করে দেওয়া হতে পারে।

এক্ষেত্রে আপনি আপনার একাউন্টটা নির্দিষ্ট সময় পরে ফিরে পাবেন। কিন্তু এই ক্ষেত্রে ফিরে পাওয়ার পরেও আপনার একাউন্টের নামে কিছু রিপোর্ট ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে রাখেন। এগুলো কিন্তু পরবর্তীতে আপনার একাউন্টে এর উপর ইফেক্ট আনতে পারেন। এজন্য আপনাকে এধরনের কাজ গুলো থেকে একেবারেই বিরত থাকতে হবে। যদি আপনার একাউন্ট চিরতরে হারাতে না চান।

সাময়িক সমস্যা হলে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে যদি সামাজিক সমস্যা দেখা দেয়। আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ব্যবহার করা বন্ধ রাখবেন। যদি আপনি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পুনরায় একই ধরনের কাজগুলো করেন, অথবা আপনার একাউন্ট ফিরে পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের কৌশল অনুসরণ করেন। এক্ষেত্রে আপনার একাউন্ট চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। অর্থাৎ ফেসবুক যেহেতু আপনাকে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ফেসবুক থেকে ব্যান করেছে।

Advertisement
সাময়িক সমস্যা হলে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?
সাময়িক সমস্যা হলে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

সে ক্ষেত্রে আপনি উক্ত সময়ের মধ্যে ফেসবুকে আর কোন অ্যাক্টিভিটি রাখতে পারবেন না। অর্থাৎ আপনার সকল অ্যাক্টিভিটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখতে হবে। আমরা অনেকে না জেনে ফেইসবুক একাউন্ট এর মধ্যে কমেন্ট করার জন্য বলি। অনেক সময় নিজেদের অজানা কৌশল গুলো ব্যবহার করি। যার ফলে আমাদের একাউন্ট চিরতরে বন্ধ হয়ে যায়। সুতরাং আপনার যদি এরকম সমস্যা দেখা যায়।

যতদিন এর জন্য আপনাকে ব্যান করা হয়েছে, ততদিন আপনি ফেসবুকে কোন একটিভিটি রাখবেন না। এবং নির্দিষ্ট সময় শেষ হওয়ার পরে পুনরায় আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। এতে আপনার একাউন্টের কোনো সমস্যা হবে না। এবং পরবর্তীতে আপনি যে কারণে টেম্পোরারি ব্লক খেয়েছেন। সেই কাজ থেকে বিরত থাকবেন। যেন পরবর্তীতে আপনার একাউন্ট ব্যান করার জন্য ফেসবুকে উদ্যোগ গ্রহণ না করে।

নষ্ট হলে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

সম্মানিত পাঠক এই আর্টিকেল এর মধ্যে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব? এই বিষয়ে সঠিক ভাবে আপনাদের গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করেছি। যদি আপনারা এই বিষয়গুলো সঠিকভাবে মানতে পারেন। তাহলে আপনার একাউন্টে কোনোভাবেই নষ্ট হবে না এবং কোনো সমস্যা দেখা দিবে না। যদি কোন কারনে ভুলের জন্য আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে যায় অথবা নষ্ট হয়ে যায়। এক্ষেত্রে আপনি আমাদের দেওয়া সমাধান গুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে একাউন্টটা পুনরায় ফিরিয়ে আনতে পারবেন।

যদি আপনারা এই বিষয়গুলো সঠিকভাবে বুঝতে না পারেন। যদি আরও সাহায্যের প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে আপনারা আমাদেরকে ফেসবুকে মেসেজ করতে পারেন, অথবা সরাসরি আমাদেরকে কমেন্ট করে প্রশ্ন করতে পারেন। আমরা আপনাদের কমেন্ট গুলোর রিপ্লাই করার মাধ্যমে। ফেসবুক একাউন্ট ফিরে পাওয়ার জন্য সঠিক সমাধান প্রদান করব।

Advertisement

আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আর্টিকেল গুলো যদি আপনাদের ভালো লাগে। এই আর্টিকেল গুলোর লিংক আপনাদের বন্ধুদের কে শেয়ার করবেন। এবং আমাদের ওয়েবসাইটে প্রচার করার জন্য আপনার ভূমিকা রাখবেন। যেন আমরা আপনাদের মাধ্যমে খুব দ্রুত আমাদের একাধিক পাঠকদের কাছে ছড়িয়ে যেতে পারি।

Advertisement
bdbloq site icom

একজন ইলেক্ট্রিক্যাল বিষয়ে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে সবসময় টেকনোলজি কে অগ্রাধিকার দিতে ভালোবাসি। প্রযুক্তির সাথে এগিয়ে যেতে ও নিজেকে সবসময় আপডেট রাখার জন্য নিয়মিত প্রযুক্তিগত জ্ঞান নিজে অর্জনের পাশাপাশি অন্যদের সাথে শেয়ার করাতে ভালো লাগে। সময় পেলে প্রযুক্তি, ব্যবসা, মার্কেটিং বিষয়ে লিখতে চেষ্টা করি। পেশা যাই হোক, তা হতে লাভবান হতে চাইলে ব্যবসা ও মার্কেটিং জ্ঞান আবশ্যক।

বাক্সে আপনার মতামত লিখে জানান