ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স ও ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার

ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স ও ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার

Advertisement

ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স এবং ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আজকের আর্টিকেলটি পড়তে পারেন। আমরা এখানে ধারাবাহিকভাবে সব কিছু তথ্য সহ আপনাদেরকে শেয়ার করব। কিভাবে আপনারা ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করবেন? সম্পূর্ণ ফ্রিতে অথবা পেইড। এখানে কিছু কোর্স থাকবে সম্পূর্ণ ফ্রি আবার অনেকগুলো থাকবে পেইড। পেইড কোর্সগুলো টাকা দিয়ে করতে হবে। পেইড কোর্সের ক্ষেত্রে আপনি ভিন্ন রকম সুবিধা পাবেন। কারণ, আপনি যখন ফ্রি কোর্স করবেন, তখন আপনাকে গাইড করার জন্য কোনো মেন্টরকে আপনি খুঁজে পাবেন না। যদি আপনি টাকা দিয়ে কোর্স করেন, এই ক্ষেত্রে কোর্সের সাথে সাথে আপনার একজন মেন্টর থাকবে।

যিনি আপনাকে বিভিন্ন বিষয়ে গাইড করবে। এবং যখন আপনি কোনো জায়গায় বাধাগ্রস্ত হবেন। তখন আপনাকে সেই জায়গায় তথ্য সহ সবকিছু দিয়ে এবং সঠিক জ্ঞান দিয়ে আপনাকে বুঝিয়ে দিবে। কিভাবে আপনি সে বাধা অতিক্রম করবেন? তা সহজে জানতে পারবেন। আশা করছি, আপনারা এখান থেকে খুব ভালো উপকৃত হতে পারবেন যদি একজন ডিজিটাল মার্কেটিং হতে চান। যারা ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে অনেক বেশি আগ্রহী তাদেরকে আমি অনুরোধ করব।

এই আর্টিকেলটি পরিপূর্ণ পড়ার জন্য। শুধুমাত্র একটি প্যারাগ্রাফ পড়ার পর যেকোনো একটা কোর্স নির্বাচন করবেন না। প্রথমে এখানে শেয়ার করা সবগুলো কোর্স যাচাই করে দেখবেন। কোনটি আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে? এখানে আমরা বাংলা ভাষায় কিছু কোর্স শেয়ার করব এবং ইংরেজি ভাষার কিছু কোর্স শেয়ার করবো। যদি আপনি ইংরেজি ভালো বুঝেন, তাহলে ইংরেজি ভাষার যে কোনো একটা কোর্স নির্বাচন করতে পারেন। যদি ইংরেজিতে ভালো না বোঝেন, তাহলে আপনি বাংলা ভাষায় যে কোনো একটা কোর্স করতে পারেন।

যদি আপনি বাংলাদেশ থেকে কোর্স করে থাকেন, অবশ্যই আপনার জন্য বাংলা ভাষাটাই বেটার হবে। এজন্য আমরা এই কথাটা বিবেচনায় রেখে আপনাদের জন্য বাংলা এবং ইংরেজি উভয় ভাষার জনপ্রিয় কোর্সের তথ্য আপনাদের জন্য শেয়ার করতে যাচ্ছি। আশা করছি, এটা আপনাদের অনেক বেশী সাহায্য করবে এবং তথ্যবহুল একটি আলোচনা হবে।

যেখান থেকে আপনারা অনেক কিছু জানতে পারবেন। ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার গড়ার জন্য কি কি আপনার পদক্ষেপ নেওয়া উচিত? সে বিষয়গুলো আপনি কোর্সের মাধ্যমে জানতে পারবেন। পাশাপাশি এখানে আমরা চাইব ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার নিয়ে একটু ধারণা দেওয়ার জন্য। আপনি যেন সাধারণভাবে কিছু তথ্য এখান থেকে জানতে পারেন।

বহুব্রীহি ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স

বহুব্রীহি বাংলাদেশের বৃহত্তর একটি অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম। যেখান থেকে আপনি অনেক ভাল মানের ডিজিটাল মার্কেটিং জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। কারণ বহুব্রীহিতে যারা ডিজিটাল মার্কেটিং আপনাকে শিখাবেন, তারা সরাসরি বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করেছে। তাদের বহু অভিজ্ঞতা রয়েছে। কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের সকল ধাপ সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা যায়? এবং ভালো ফলাফল কিভাবে অর্জন করা যায়? সে বিষয়ে তারা আপনাকে সরাসরি লাইভ সব কিছুতে সাহায্য করতে পারবে।

এখানে আমি আপনাকে বলতে পারি। যদি আপনি ভালো মানের লাইভ প্রজেক্টের সাথে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ভালো জ্ঞান অর্জন করতে চান, তাহলে অবশ্যই বাংলা ভাষায় বহুব্রীহি থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে কোর্স করতে পারেন। এটি বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় প্লাটফর্ম। যেখানে হাজার হাজার সফল ফ্রিল্যান্সার আপনাকে একজন শিক্ষক হিসেবে শিখাবেন। এখানে আপনি ফ্রি এবং টাকার বিনিময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করতে পারবেন। আপনি যদি ফ্রি তে কোর্স করেন, তাহলে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের সকল বেসিক জানতে পারবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স
ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স

যদি আপনি সবকিছুতে সাহায্য নিয়ে ভালো করে শিখতে চান, তাহলে আপনি এখান থেকে পেইড কোর্স করতে পারবেন। ফ্রি করবেন নাকি পেইড করবেন? সেটা সম্পূর্ণ আপনার চাহিদার উপর নির্ভর করবে। তবে আমি আপনাকে পরামর্শ দিব প্রাথমিকভাবে আপনি ফ্রি কোর্স ট্রাই করুন। ফ্রি কোর্স করে আপনি যদি যথেষ্ট পরিমাণ তথ্য পেয়ে থাকেন। এবং সেগুলো যদি আপনার ভালো লাগে, তাহলে আপনি নিজেকে আরও দক্ষ করে তোলার জন্য এরপরে প্রিমিয়াম কোর্স করতে পারেন।

বহুব্রীহি থেকে পেইড কোর্স করলে সাধারণত এরা অনেক প্রিমিয়াম তথ্য আপনাকে সরবরাহ করার পাশাপাশি অনেকগুলো টুলস দিয়ে সাহায্য করতে পারে। তারা তাদের স্টুডেন্টদেরকে ভালোভাবে এগিয়ে নেওয়ার জন্য অনেকগুলো টুলস অফার করে থাকেন। যেগুলো আপনি ক্রয় করতে গেলে অনেক বেশি টাকা আপনাকে বিনিয়োগ করতে হবে। তবে এমন নয় যে, কোর্স করলে আপনাকে টুলগুলো দিয়ে অবশ্যই সাহায্য করতে হবে। যদি টুলগুলো তাদের কাছে অ্যাভেলেবল থাকে, তাহলে তারা আপনাকে সাহায্য করতে পারবে।

Advertisement

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই তাদের সাথে কথা বলে এই ধরনের হেল্প চাইতে হবে। যদি আপনি তাদের একজন স্টুডেন্ট হিসেবে রেজিস্ট্রার হয়ে যান, তাহলে অবশ্যই আপনি এই বিষয়ে তাদের কাছ থেকে সাহায্য সংগ্রহ করতে পারবেন।

বহুব্রীহি থেকে কোর্স গুলো দেখার জন্য আপনি এখান থেকে ভিজিট করতে পারেন। নিচে আমি বহুব্রীহির অফিশিয়াল ওয়েবসাইট লিংক দিয়ে দিয়েছি। সেখান থেকে আপনারা সবগুলো কোর্স ভিজিট করতে পারেন। এখানে শুধুমাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স নয়। এছাড়াও আরও বিভিন্ন রকমের স্কিল অর্জন করার জন্য অনেক ধরনের কোর্স রয়েছে।

যেকোনো কোর্স আপনি করতে পারেন। যদি আপনি এখান থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করেন, তাহলে আপনি এখান থেকে বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন। আশা করি, বহুব্রীহি আপনার জন্য সবচেয়ে সেরা হবে এবং এখান থেকে আপনি আপনার পছন্দের যেকোনো কোর্স করতে পারবেন।

এখান বহুব্রীহির ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

ইশিখন ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স

বাংলাদেশের সেরা একটি জনপ্রিয় অনলাইন আইটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ইশিখন। ইশিখনের মাধ্যমে আপনি যেকোন ধরনের অনলাইন কোর্স করতে পারবেন ঘরে বসে। সাধারণত এরা যে সকল কোর্সগুলো করিয়ে থাকেন, এগুলো খুবই তথ্যবহুল হয়ে থাকে। এটি ছাত্রদের জন্য জনপ্রিয় একটি প্ল্যাটফর্ম। এমনকি বর্তমানে অনেক সফল ছাত্র ছাত্রীরা রয়েছে, যারা ইশিখন থেকে কোর্স করার মাধ্যমে সফলভাবে ফ্রিলেন্সিংকে ক্যারিয়ার গড়েছে।

আপনি যদি এখান থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করতে চান, তাহলে আজকে আপনি তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। আমরা নিচের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট লিংক দিয়ে দিচ্ছি। এছাড়াও এখানে অনেক ধরনের কোর্স পাবেন, যেগুলো আপনার ক্যারিয়ারের স্কিল বৃদ্ধি করতে অনেক বেশী সাহায্য করবে। ক্যারিয়ারের দক্ষতা বৃদ্ধি করাটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আপনার যদি দক্ষতা থাকে, তাহলে যেকোনো ধরনের কাজে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারবেন। এবং যেকোন কাজে পরিশ্রম করে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন।

এজন্য আপনাকে অবশ্যই বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা অর্জন করতে হবে। আপনি শুধুমাত্র স্কুল-কলেজের পাঠ্যপুস্তক এর উপর নির্ভর করে জীবনে এগিয়ে যেতে পারবেন না। আপনাকে যদি ভালোভাবে এগিয়ে যেতে হলে, অবশ্যই ডিজিটাল টেকনোলজির সাথে পরিচিত হতে হবে। আর ডিজিটাল টেকনোলজি কে কিভাবে ব্যবহার করতে হয়? সে বিষয়ে জানার জন্য অবশ্যই আপনার যেকোন আইটি সেন্টার থেকে এই বিষয়গুলো নিয়ে ট্রেনিং নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

ইশিখন এর সবচেয়ে মজার একটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে আপনি লাইভে যুক্ত হয়ে লাইভ ক্লাস করতে পারবেন। আপনি যদি ইশিখন থেকে কোনরকম কোর্স ক্রয় করেন, সরাসরি কোর্সে ভর্তি হওয়ার পর লাইভে ক্লাস করতে পারবেন। এই সুবিধাটি উপভোগ করতে অবশ্যই প্রিমিয়াম কোর্স করতে হবে। এখান থেকে আপনি যখন কোন কোর্স সম্পন্ন করবেন, তখন আপনাকে একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। তবে এখানে আমরা যে সকল প্রতিষ্ঠান নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি, সবগুলো প্রতিষ্ঠান সার্টিফিকেট সরবরাহ করে থাকে।

যদি আপনি ফ্রি কোর্স করে থাকেন, এক্ষেত্রে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠার আপনাকে সার্টিফিকেট দিবে না। যদি আপনি পেইড কোর্স করেন অবশ্যই কোর্স শেষে একটি সার্টিফিকেট পাবেন। যদি এই বিষয়ে অনেক বেশি আগ্রহী হয়ে থাকেন, তাহলে আমি আপনাকে বলব আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে পড়াশোনা শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার জন্য ইশিখন সেরা একটা ইনস্টিটিউট হবে।

Advertisement

এখান ইশিখন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

ইশিখন ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার

যদি আপনার ভালো দক্ষতা থাকে, তাহলে আপনি যেকোন বিষয়ে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপের জন্য অথবা চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবেন। এটি হচ্ছে আপনার জন্য সেরা একটি সুযোগ। আপনি যদি থেকে বিভিন্ন বিষয়ে কোর্স করে থাকেন, তাহলে এই উপায়টি আপনার জন্য আরও সহজ হয়ে যাবে। যদি আপনি এই বিষয়টিকে ভালোভাবে প্রাধান্য দিতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে ভালভাবে স্টাডি করতে হবে।

যেকোন বিষয় নিয়ে আপনি যদি ইশিখন থেকে কোর্স করে সরাসরি শিখনের মাধ্যমে জব করার জন্য আবেদন করতে চান। এই ক্ষেত্রে ইশিখনের অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা তাদের মাধ্যমে নিয়োগ দিয়ে থাকেন। সাধারণত ডিজিটাল মার্কেটিং, ওয়েব ডেভলপমেন্ট, এবং গ্রাফিক ডিজাইন সহ সকল চাকরির সুযোগ রয়েছে।

মূলত এই ধরনের বিষয়গুলোতে নিয়োগ দেওয়ার জন্য অনেকগুলো রেফারেন্স প্রতিষ্ঠান রয়েছে। ইশিখন আপনাদেরকে এই বিষয়গুলোতে অনেক বেশি সাহায্য করতে পারে। তবে অবশ্যই ভালো ছাত্রদেরকে তারা সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে। আপনি যদি মনোযোগ দিয়ে সকল বিষয়গুলোতে পড়াশোনা করে নিজেকে দক্ষ হিসেবে পরিচিত করাতে পারেন। এবং একটি সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারেন, তাহলে আপনি এধরনের সুযোগ গ্রহণ করতে পারবেন। আশা করছি, এই প্রতিষ্ঠানটি আপনাদের জন্য আরো বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

যেহেতু এখানে চাকরি করার জন্য অনেক ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হয়। এমনকি আপনি চাকরি না পেলেও কিন্তু বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে বায়ার কে সার্ভিস বিক্রি করার মাধ্যমে অনেক ভালো ইনকাম করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সার হিসেবে আপনি খুব ভালো করতে চাইলে, অবশ্যই ইশিখন থেকে কোর্স করে তাদের শিক্ষকদের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করুন। এখানে অভিজ্ঞদের মাধ্যমে বাধা গুলো কে উপেক্ষা করে এগিয়ে যেতে পারেন।

লার্নিং বাংলাদেশ ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স –

এক সময় যদিও বাংলাদেশের মধ্যে ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে শুরু করে অন্যান্য অনলাইন স্কিল বিষয়ে কাজ শেখার জন্য অনেক বাধা ছিলো। সেগুলোতে মানুষ এত বেশি আগ্রহী ছিল না। কারণ, মানুষ এগুলো নিয়ে জানত না। বর্তমান সময়ে এগুলোর প্রচারণা অনেক বেশি হচ্ছে। এজন্য অনলাইনে সকল বিষয়ের চাহিদা অনেক বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে। আপনি যদি বাংলাদেশের মধ্যে এধরনের কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং বা অন্যান্য যেকোনো বিষয়ে কোর্স করতে চান, তাহলে লার্নিং বাংলাদেশ হচ্ছে আপনার জন্য সেরা একটি প্ল্যাটফর্ম। লার্নিং বাংলাদেশের মধ্যে অনেকগুলো কোর্স রয়েছে। যেকোনো ক্যাটাগরিতে আপনি পছন্দের কোর্স করতে পারবেন।

কারণ, এদের অনেকগুলো প্রিমিয়াম কোর্স রয়েছে। যেগুলো সকল ছাত্রদের জন্য অনেক জনপ্রিয় হতে পারে। কারণ এগুলো থেকে আপনি যেকোন বিষয়ে স্টাডি করতে পারবেন এবং দক্ষতা অর্জন করার মাধ্যমে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। যদি অনলাইনে ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে অবশ্যই আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

এখনো আমরা কোর্সগুলো নিয়ে আপনাদেরকে বিভিন্ন সন্ধান দিয়ে যাচ্ছি। যদি আপনারা এখান থেকে যেকোন একটা ইনস্টিটিউটকে পছন্দ করেন, তাহলে যেকোন ইনস্টিটিউট থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে ভালো দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। এমন নয় যে, আপনাদেরকে শুধুমাত্র মার্কেটিং সম্পর্কে কোর্স করতে হবে। এই সকল ইনস্টিটিউটগুলোতে আপনি আরো অন্যান্য বিষয়েও আপনার পছন্দের কোর্স করে দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন।

বাংলাদেশের তরুণ উদ্যোক্তাদের মাধ্যমে লার্নিং বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠানটি পরিচালিত হয়। আপনি যদি এখান থেকে যেকোন বিষয়ে কোর্স করে শিখতে চান, তাহলে অনেকগুলো তরুণ শিক্ষকদের মাধ্যমে আপনি এখান থেকে বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত শিখতে পারবেন। আশা করছি, এই প্রতিষ্ঠানটি আপনার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করার জন্য ভালো একটি অপরচুনিটি হবে। আপনি যদি এখানে ভিজিট করে যেকোনো ধরনের পছন্দের কোর্স করতে চান, তাহলে নিচের দেওয়া লিঙ্ক থেকে আপনি লার্নিং বাংলাদেশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Advertisement

এখান লার্নিং বাংলাদেশ ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

ইউডেমি থেকে ইংরেজিতে শিখুন –

সারা বিশ্বের মধ্যে জনপ্রিয় একটি অনলাইন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ইউডেমি। ইউডেমি থেকে আপনি বিভিন্ন বিষয়ে শিখতে পারবেন। ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করার জন্য ইউডেমিতে অনেক ধরনের কোর্স রয়েছে। কারণ, ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স নিয়ে ইউডেমিতে হাজার হাজার শিক্ষক বিভিন্ন দেশ থেকে তাদের কৌশল গুলো অনুসরণ করে কোর্স তৈরি করেছে। আপনি এখান থেকে আপনার পছন্দের যেকোন ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করতে পারেন। এটি সারা বিশ্বের মধ্যে পরিচিত একটি আইটি প্রতিষ্ঠান। এখান থেকে আপনি ভাল শিখতে পারবেন।

অবশ্যই এখান থেকে কোয়ালিটি সম্পন্ন ভিডিও কন্টেন্ট গুলো দেখে দেখে সবকিছু শিখতে পারবেন। আশা করছি, এই প্রতিষ্ঠানটি আপনার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করতে অনেক বেশি ভালো হবে। যদি আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে আমাদের ব্লগের ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যাটাগরি ভিজিট করতে পারেন। এখানে আমরা অনেক কিছু তথ্য বহুল আলোচনা করেছি। যেখান থেকে আপনি এই বিষয়ে অনেক অনেক ভালো বুঝতে পারবেন এবং শিখতে পারবেন।

এখান ইউডেমি ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

ইউডেমির কোর্স কিভাবে করবেন?

বাংলাদেশ থেকে ইউডেমির কোর্স ক্রয় করার জন্য একটা সবচেয়ে জটিল সমস্যা হচ্ছে, কোর্স ক্রয় করার সময় পেমেন্ট সমস্যা। ইউডেমি অবশ্যই ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সিতে পেমেন্ট করতে থাকে। কিন্তু এই সমস্যাটি ইতিমধ্যে সমাধান হয়ে গেছে। বর্তমানে আপনি বাংলাদেশের জনপ্রিয় একটি কোম্পানি বিকাশের মাধ্যমে যেকোন সময় ইউডেমিতে পেমেন্ট করতে পারবেন। এই সার্ভিসটি দিয়ে আপনি যেকোনো সময়ই ইউডেমির কোর্স করতে পারবেন।

বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করে যদি ইউডেমি থেকে কোর্স ক্রয় করতে চান, সেই ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে বিকাশ অ্যাপটি ইনস্টল করতে হবে। বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে আপনি যেকোন সময় ইউডেমিতে পেমেন্ট করতে পারবেন। এটি নতুন একটি সুবিধা আপনাদের জন্য চালু হয়েছে। আপনারা খুব সহজেই এই সুবিধা ব্যবহার করতে পারবেন। কিভাবে বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করতে হয়? বিকাশের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ফিচার এবং অনেকগুলো অফার সম্পর্কে জানিয়ে আমরা একটি তথ্যবহুল আর্টিকেল প্রকাশ করেছি। আপনারা চাইলে বিকাশ সম্পর্কিত এই আর্টিকেল পড়তে পারেন।

সার্টিফিকেট সহ কোর্সগুলো অনেক সময় সম্পূর্ণ ফ্রিতে পাওয়া যায়। যদি আপনি এই ধরনের কোনো সুযোগ-সুবিধা পেতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনি আমাকে মেসেজ করতে পারেন। আমার ফেসবুক পেজে যদি আপনারা মেসেজ করেন, তাহলে উক্ত সময়ে যদি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কিত কোন কোর্স সার্টিফিকেট সহ সম্পূর্ণ ফ্রিতে পাওয়া যায়। আমি আপনাদেরকে তা দিয়ে সাহায্য করতে পারব।

আমি ইতিমধ্যে অনেকগুলো কোর্স আমার গ্রুপে ও শেয়ার করেছি। এবং বিভিন্ন সময় ডিজিটাল মার্কেটিং সহ আরও বিভিন্ন ধরনের বিষয়ে অনেকগুলো কোর্স সার্টিফিকেট সহ সম্পূর্ণ ফ্রিতে অনেক ভাই-বোনদেরকে দিয়ে সাহায্য করেছি। যদি আপনারাও পেতে চান, তাহলে আপনারা আমাকে ফেসবুকে মেসেজ করতে পারেন। কখনো আমার ফেসবুক প্রোফাইলে এই বিষয়গুলো নিয়ে মেসেজ করবেন না।

যদি আপনারা এই বিষয়ে সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে চান, তাহলে অবশ্যই আমাকে ফেসবুক পেজে মেসেজ করতে হবে। আমি যখন সময় পাব, তখন আপনাদের মেসেজ দেখব এবং আপনাদের মেসেজের রিপ্লাই করব। এবং আপনার পছন্দের কোর্সের যদি কোন ফ্রি অফার থাকে, তাহলে সে অফারটি আমি আপনাকে দিয়ে সাহায্য করব। যেন আপনি কোন টাকা বিনিয়োগ না করে ইউডেমি থেকে বিশ্বমানের জনপ্রিয় কোর্স করে স্কিল অর্জন করতে পারেন। এবং একজন প্রফেশনাল হিসেবে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।

Advertisement

কোর্সেরা থেকে পছন্দের কোর্স করুন:

বিশ্বের বিভিন্ন সুনামধন্য কোম্পানি ও ইউনিভার্সিটি গুলোর সব কোর্স পাবেন কোর্সেরাতে। এটি সারা সারা বিশ্বের মধ্যে জনপ্রিয় একটি অনলাইন ইউনিভার্সিটি। যেখানে আপনি টেকনোলজি, ব্যবসা, ইঞ্জিনিয়ারিং সহ বিভিন্ন বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। শুধুমাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স নয়। এছাড়াও আপনি বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এইখানে অনেকগুলো কোর্স পাবেন। যে সকল কোর্সগুলো বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি থেকে তৈরি করা হয়েছে।

সারা বিশ্বের জনপ্রিয় ইউনিভার্সিটিগুলো এখানে তাদের কোর্সগুলো পাবলিশ করে থাকে। আপনি যদি এখান থেকে কোর্স করতে চান, তাহলে আপনাকে মোটা অংকের টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। কারণ, এদের সার্টিফিকেট এর মান কিন্তু অনেক ভালো। এমনকি আপনি যদি কোর্সেরা থেকে সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারেন। সেই সার্টিফিকেট দিয়ে আপনি বিশ্বের জনপ্রিয় বিভিন্ন কোম্পানিতে আবেদন করতে পারবেন। কারণ, হচ্ছে এরা এমন একটি প্রফেশনাল সার্টিফিকেট প্রদান করে, যেটা খুবই সম্মানজনক।

এজন্য সব জায়গায় কোর্সেরার সার্টিফিকেট আপনাকে বেশি ফেসিলিটি দিতে সক্ষমতা রাখে। আপনি যদি এভাবে কোর্সেরা থেকে যে কোন কোর্স করতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনি কোর্সেরা থেকে কোর্স করতে চান, তাহলে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। ইতিমধ্যে তাদের কোনরকম স্কলারশিপ সুবিধা আছে কিনা জানিনা। তারা বিভিন্ন রকম স্কলারশিপ প্রদান করে থাকে। সেই স্কলারশিপে যদি আপনি অংশগ্রহণ করতে পারেন, তাহলে আপনি কোন রকম টাকা ছাড়া সম্পূর্ণ ফ্রিতে কোর্সেরা থেকে কোর্স করতে পারবেন। ব্যবসা, ইঞ্জিনিয়ারিং, গ্রাফিক ডিজাইন, ডিজিটাল মার্কেটিং সহ যেকোনো বিষয়ে আপনি শিখতে পারবেন।

এটি খুবই জনপ্রিয় একটি প্ল্যাটফর্ম। তবে এখানে যে সকল কোর্স পাবেন, সেগুলো অধিকাংশ ইংরেজি ভাষায়। বাংলায় এখানে কোনো কোর্স পাবেন না। ইউডেমি এবং কোর্সেরা হচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট যেখানে আপনি ইংরেজিতে কনটেন্ট পাবেন। আপনি ইংরেজি ছাড়াও বিভিন্ন রকম ভাষায় কোর্স পাবেন। আপনি যদি অন্য ভাষা ভাল বুঝেন, তাহলে আপনি আপনার পছন্দের ভাষায় কোন কোর্স করতে পারবেন।

এখান কোর্সেরার ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

লার্নিং এন্ড আর্নিং ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স –

Advertisement

টেকনোলজি শিক্ষায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকার অনেকগুলো উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তার মধ্যে লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প হচ্ছে একটি উল্লেখযোগ্য। যেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দের যেকোন কোর্স করে স্কিল অর্জন করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। বাংলাদেশ সরকার এখানে তিন ধরনের কোর্স সম্পূর্ণ ফ্রিতে করার সুযোগ করে দিয়েছেন। তার মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স।

আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে সম্পূর্ণ ফ্রিতে সরকারি খরচে শিখতে চান, তাহলে আপনার জন্য এটা খুবই ভাল একটি সুযোগ হতে পারে। এমনকি আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারেন, তাহলে এখান থেকে আপনি একটি সরকারি সার্টিফিকেট পাবেন। যে সার্টিফিকেটের মান অনেক। আশা করছি, আপনি সরকারি প্রজেক্টের সুবিধা বিষয়ে অবশ্যই ভালো বুঝেন। কারণ, সরকারি যেকোনো সুযোগ অনেক মূল্যবান হয় আপনি যদি সফল ভাবে একজন ফ্রীল্যান্সার হতে পারেন, তাহলে আপনি সরকারের কাছ থেকে পুরস্কৃত হতে পারবেন।

যদি আপনি সর্বোচ্চ পরিশ্রম করে টপ আর্নার হতে পারেন, তাহলে আপনি সরকারি একটা ল্যাপটপ গিফট পেতে পারেন। এখানে সরকার ফ্রিল্যান্সারদেরকে অনলাইন থেকে উপার্জন করার জন্য আরও আগ্রহী তুলতে টপ আর্নারদের একটি ল্যাপটপ পুরস্কৃত করে থাকেন। যে ল্যাপটপটি অনেক ভালো কনফিগারেশনের হয়ে থাকে। আমি নিজেও লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে কোর্স করেছি। এবং ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে কোর্স করার পর আমি ইতিমধ্যে সফলতার সাথে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করেছি। এমনকি আমি আমার দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে টপ আর্নার হিসেবে সরকারি একটি ল্যাপটপ পুরস্কার হিসেবে বিজয়ী হয়েছি।

আপনিও যদি আমার মত টপ আর্নার হয়ে সরকারের কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ পুরস্কার হিসেবে অর্জন করতে চান, তাহল LEDP থেকে যেকোনো একটা কোর্স করতে পারেন। যদি আপনি এই পুরস্কারটি কে অনেক বড় মনে করে থাকেন। অবশ্যই আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে। মনে রাখবেন সরকারি যেকোনো কিছু একজন নাগরিক হিসেবে পুরস্কার পাওয়াটা অনেক সম্মানের হয়ে থাকে। যদি আপনি এই সম্মানটা কে হাসিল করতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

Advertisement

যেভাবে আমি পরিশ্রম করে টপ আর্নার হিসেবে একটি ল্যাপটপ সরকার থেকে পুরস্কার হিসেবে পেয়েছি। আশা করছি, আপনিও কোর্সগুলো করে ফ্রিতে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নিজের দক্ষতাকে এগিয়ে নিতে পারবেন। এবং অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

এখান লার্নিং এন্ড আর্নিং ওয়েবসাইট ভিজিট করুন —-

ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার –

আমিও একজন ডিজিটাল মার্কেটিং হিসেবে এই বিষয়টি খুব ভালো জানতে পারি। অনলাইনে অনেকেই ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার সম্পর্কে লিখে সার্চ করে থাকেন। আপনারা যদি ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে কোন সন্দেহ প্রকাশ করেন, তাহলে কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল করছেন। ডিজিটাল মার্কেটিং হচ্ছে অনেক ভালো একটি ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ। আপনি এখানে খুব ভালো করে স্বপ্ন দেখতে পারেন। কারণ, এটি এমন একটি ক্যারিয়ার গড়ার অপরচুনিটি। যেখানে আপনি যেকোন ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের অ্যালগরিদমটা যদি ভালো বুঝতে পারেন, তাহলে আপনি যেকোন কোম্পানিতে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকি আপনি যদি স্বাধীনভাবে কাজ করতে চান। কোনো কোম্পানিতে চাকরি করার ইচ্ছা যদি আপনার না থাকে, তাহলে আপনি জনপ্রিয় যেকোনো ফ্রীলান্স মারকেটপ্লেস কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং কাজের জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং খুবই জনপ্রিয় একটি সার্ভিস। বর্তমানে ফাইভার, আপওয়ার্ক, এবং ফ্রিল্যান্সার ডট কমের মত জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই ধরনের সার্ভিসগুলোর চাহিদা অনেক বেশি।

এমনকি বর্তমান সময়ে যারা বিশ্বের খারাপ পরিস্থিতিতে বসে আছেন, তাদের কিন্তু এই বিষয়ে কোন জ্ঞান নেই। এজন্য তারা বসে আছে। আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে ভালো দক্ষতা অর্জন করতে পারেন, তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হবে। এমনকি আপনি যদি কোন ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে না চান, অথবা কোনো চাকরি করতে না চান, তাহলে আপনি নিজের কোম্পানি কে এগিয়ে নেওয়ার জন্য কাজ করতে পারবেন। অনলাইনে আপনার দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে আপনি মার্কেটিংয়ের কাজ নিজের ব্যবসার করতে পারেন, তাহলে যেকোনো ধরনের সার্ভিস বিক্রি করতে পারবেন।

সাধারণত যারা এফিলিয়েট মার্কেটিং করে থাকেন তারাও কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে অনেক অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে যদি অনলাইন থেকে অর্থ উপার্জন করতে চান, তাহলে এই বিষয়টি আপনাকে অনেক বেশি সাহায্য করতে পারে। যদি আপনি নিজের ক্যারিয়ারকে উজ্জ্বল হিসেবে এগিয়ে নিতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।

আমার জানা মতে এটা খুবই ভাল একটি প্রফেশন। যদি আপনার আসলে এই বিষয়টি ভালো না লাগে, তাহলে কখনো জোর করে কেউ আপনাকে এই বিষয়ে আগ্রহী করতে পারবে না। যদি আপনি মন থেকে ভালবাসেন, তাহলে অবশ্যই ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ার আপনার জন্য সেরা হতে পারে আমি বিশ্বাস করি।

প্রিয় পাঠক, আশা করছি ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স এবং ক্যারিয়ার সম্পর্কিত আলোচনা আপনাদের অনেক বেশি ভালো লেগেছে। যদি আপনাদের আলোচনাটি ভালো লেগে থাকে, তাহলে আপনারা অবশ্যই আমাদের আর্টিকেলটি আপনাদের ফেসবুক, টুইটার, এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে বা হোয়াটসঅ্যাপে শেয়ার করতে পারেন। যেন আমরা আপনাদের শেয়ারের মাধ্যমে আরও বন্ধুদেরকে এখানে পেতে পারি। এর ফলে আপনার বন্ধুরাও এখান থেকে উপকৃত হতে পারবে।

আপনাদের যদি কোনো প্রশ্ন থাকে, তাহলে আপনাদের প্রশ্নগুলো কমেন্ট বক্সে করতে পারেন। আপনাদের প্রশ্নগুলোর উত্তর আমরা খুব দ্রুতই দেওয়ার চেষ্টা করব। আশা করছি, আপনারা এখান থেকে তথ্য বহুল আলোচনার মাধ্যমে সবকিছু জানতে পেরেছেন।

Advertisement
Advertisement

md thouhidul islam tawhid seo and digital marketing

একজন ইলেক্ট্রিক্যাল বিষয়ে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে সবসময় টেকনোলজি কে অগ্রাধিকার দিতে ভালোবাসি। প্রযুক্তির সাথে এগিয়ে যেতে ও নিজেকে সবসময় আপডেট রাখার জন্য নিয়মিত প্রযুক্তিগত জ্ঞান নিজে অর্জনের পাশাপাশি অন্যদের সাথে শেয়ার করাতে ভালো লাগে। সময় পেলে প্রযুক্তি, ব্যবসা, মার্কেটিং বিষয়ে লিখতে চেষ্টা করি। পেশা যাই হোক, তা হতে লাভবান হতে চাইলে ব্যবসা ও মার্কেটিং জ্ঞান আবশ্যক।

নিচের বাক্সে আপনার মতামত লিখে জানান।

error: Content is protected !!