শেয়ার্ড হোস্টিং বনাম ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

thumbnail

নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদের মুখোমুখি হওয়া সবচেয়ে ভয়ঙ্কর একটি কাজ হ’ল: তাদের ওয়েবসাইটের জন্য “Best Web Hosting” বেছে নেওয়া।

বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার হোস্টিং কোম্পানি রয়েছে। হোস্টিং কোম্পানিগুলো অনেকগুলো পৃথক প্যাকেজ সরবরাহ করে।

ফলে কোন ব্যবহারকারী কোন প্যাকেজটি নির্বাচন করবে তা পরিষ্কার নয়।

গত কয়েক বছর ধরে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদের জন্য Manage WordPress Hosting নামে একটি নতুন হোস্টিং সার্ভিস চালু করা হয়েছে।

এই সার্ভিস নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদের সাইট ম্যানেজ করতে সাহায্য করে।

 এই লেখাতে আমি আপনাকে ওয়েবসাইট হোস্টিংয়ের একটি প্রাথমিক ধারণা দিতে চাই।

এবং শেয়ার্ড হোস্টিং এবং ম্যানেজ ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এর মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করতে চাই।

শেয়ার্ড হোস্টিং বনাম ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

আপনারা যারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটটের জন্য একটি নতুন হোস্টিং কোম্পানির সন্ধান করছেন। তাদের জন্য আজকের লেখা দরকারী বলে মনে করি।  🙂

লিটল হোস্টিং টার্মিনোলজি

শেয়ার্ড হোস্টিং এবং ম্যানেজ ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এর মধ্যে পার্থক্য বুঝতে, আপনার হোস্টিং পরিভাষা সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা প্রয়োজন।

সমস্ত ওয়েবসাইট ফাইল ডেডিকেটেড সার্ভারগুলিতে হোস্ট করা হয়। যা নিরাপদ বিল্ডিংগুলিতে ডেটা সেন্টার বলে।

আপনি ডেডিকেটেড সার্ভারগুলোকে মনিটর ছাড়া একটি ডেস্কটপ কম্পিউটার হিসাবে ভাবতে পারেন।

ডেস্কটপ কম্পিউটারগুলোর মতো, ডেডিকেটেড সার্ভারগুলো একটি সিপিইউ দ্বারা চালিত হয়।

এবং এতে র‌্যাম (র‌্যান্ডম অ্যাক্সেস মেমরি) মডিউল এবং হার্ড ড্রাইভ থাকে।

সিপিইউ গণনা এবং অন্যান্য প্রক্রিয়া সম্পাদনের জন্য ভালো কাজ করে।

বর্তমান ডেটা এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলো র‍্যামে সঞ্চিত রয়েছে। এবং হার্ড ড্রাইভগুলো ফাইল সংরক্ষণের জন্য কাজ করে।

সাধারণত কোনও ওয়েবসাইটে যত বেশি ট্র্যাফিক আসে, সার্ভারের সিপিইউতে তত বেশি চাপ পড়ে।

ফলে ডেটা পরিচালনা করতে আরও র‌্যামের প্রয়োজন হয়। এবং গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইটের ফাইলগুলো জমা করার জন্য আরও স্টোরেজ প্রয়োজন হয়।

আপনি যখন কোনও ডেডিকেটেড সার্ভার ক্রয় করবেন। আপনি সার্ভারটিতে সম্পূর্ণ অ্যাক্সেস পাবেন। এবং সমস্ত কিছুর উপর আপনার সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে।

ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং
ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

ভার্চুয়াল প্রাইভেট সার্ভার (ভিপিএস) হিসাবে পরিচিত যা হোস্টিং কোম্পানিগুলো সেটআপ করে। এধরনের সার্ভারটি কয়েকটি পার্টিশনে বিভক্ত হয়।  প্রতিটি পার্টিশনে একটি অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করা থাকে। এবং সিপিইউ সময়, র‌্যাম এবং স্টোরেজ সবার মাঝে ভাগ করে শেয়ার করা হয়। 

উদাহরণস্বরূপ, একটি ভিপিএস প্যাকেজ ক্রয় করলে, আপনাকে দুটি সিপিইউ কোর, ২ জিবি র‌্যাম এবং ৪০ জিবি স্টোরেজ দিতে পারে।

আপনি যখন একটি শেয়ার্ড হোস্টিং প্ল্যান ক্রয় করবেন, তখন আপনার জন্য যে প্রয়োজন মতো স্টোরেজ বরাদ্দ দেওয়া হবে কি-না তার গ্যারান্টি খুব কমই পাবেন।

শেয়ার্ড হোস্টিংয়ে আপনার ওয়েবসাইট শত শত বা সম্ভবত হাজার হাজার অন্যান্য ওয়েবসাইটের পাশাপাশি হোস্ট করা হয়ে থাকে।

যে কারণে শেয়ার্ড হোস্টিং প্ল্যানগুলো কম ট্র্যাফিক আসা ওয়েবসাইটগুলোর জন্য বেশি উপযুক্ত।

শেয়ার্ড হোস্টিং গ্রাহকরা অন্য হোস্টিং প্ল্যানের চেয়ে বেশি ব্যবহার করেন; ফলে হোস্টিং কোম্পানি গ্রাহকদের কার্যকরভাবে প্রয়োজন মতো স্টোরেজ বরাদ্দ দিতে ব্যর্থ হয়।

এজন্য যদি আপনার ওয়েবসাইটে অনেক বেশি ভিজিটর আসতে শুরু করে। আপনার অবশ্যই ব্যয়বহুল হোস্টিং প্ল্যানে আপগ্রেড করতে হবে।

ম্যানেজ ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং বিশেষ করে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদের যথেষ্ট ভালো হোস্টিং প্ল্যান।

হোস্টিং বৈশিষ্ট্য:

ওয়েব হোস্টিং কন্ট্রোল প্যানেল বলতে বুঝানো হয়। যেখানে আপনি নিজের ওয়েবসাইটগুলো পরিচালনা করেন এবং আপনার হোস্টিং কনফিগারেশন পরিবর্তন করেন।

হোস্টিং কোম্পানিগুলো সাধারণত শেয়ার্ড হোস্টিংয়ের সাথে গ্রাহকদের সিপ্যানেলের এক্সেস দিয়ে থাকে।

নিয়ন্ত্রণ প্যানেল থেকে আপনি আপনার ডাটাবেস পরিচালনা করতে পারেন, ফাইল পরিচালনা করতে পারেন, ইমেলগুলি কনফিগার করতে পারেন, পরিসংখ্যান পরীক্ষা করতে পারেন,

সুরক্ষা পরিচালনা করতে পারেন, নতুন অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করতে পারেন এবং আরও অনেক কিছু করতে পারেন।

হোস্টিং কনফিগারেশন দৃষ্টিকোণ থেকে, ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং কোম্পানিগুলো গ্রাহক যেন সহজে ওয়েবসাইট সেটআপ করতে পারেন।

তার জন্য গ্রাহকদের সকল সুবিধা সরবরাহ করে।

সিপ্যানেলের মতো ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং কন্ট্রোল প্যানেল ব্যবহার না করে, ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং কোম্পানিগুলো একটি কাস্টম নিয়ন্ত্রণ প্যানেল সরবরাহ করে।

এই কন্ট্রোল প্যানেল সহজে নতুন ব্যবহারকারীরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

আপনি যদি কয়েক বছর ধরে সিপ্যানেলের মতো কোনও কন্ট্রোল প্যানেল ব্যবহার করন।

তাহলে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস কন্ট্রোল প্যানেল পছন্দ নাও হতে পারে।

WordPress Hosting গ্রাহকদের অনেক দুর্দান্ত সুবিধা দেয়। যা Shared Hosting কোম্পানিগুলো দেয় না।

ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিংয়ের কিছু অতিরিক্ত কার্যকারিতা এখানে আলোচনা করা হয়েছে:

  • লোডিং স্পিড: এরা ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড খুব ভালো করতে শক্তিশালী সেবা প্রধান করে।
  • দ্রুত ডাটা ডেলিভারি: এই হোস্টিং প্যানেল সার্চ ইঞ্জিনকে দ্রুত ডাটা ডেলিভারি করে।

  • দৈনিক ওয়েবসাইট ব্যাকআপস: শেয়ার্ড হোস্টিং কোম্পানিগুলো সাধারণত অভ্যন্তরীণ ব্যাকআপ দেয়। অভ্যন্তরীণ ব্যাকআপ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে থাকে। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস সুরক্ষিত স্থানে ব্যাকআপ রাখতে সাহায্য করে।
  • স্থানান্তরযোগ্য ইনস্টল: ওয়েবসাইট কোম্পানিগুলো হস্তান্তরযোগ্য ইনস্টল পছন্দ করে। এটি আপনাকে ক্লায়েন্টের জন্য তৈরি একটি ডিজাইন আপলোড করার অনুমতি দেয়।  তারপরে আপনি প্রস্তুত করা ওয়েবসাইটটি অন্য ক্লায়েন্টের কাছে সহজে স্থানান্তর করতে পারবেন।

  • ব্লুপ্রিন্টস: ফ্লাইহিল ব্লুপ্রিন্ট নামে একটি দুর্দান্ত বৈশিষ্ট্য সরবরাহ করে। যা আপনাকে থিম এবং কাস্টম প্লাগইন কনফিগারেশন সহ একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তৈরি করতে দেয়।  তারপরে আপনি ভবিষ্যতের ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টলেশনের জন্য এটি একটি টেম্পলেট হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন।

  • বর্ধিত সুরক্ষা: ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং কোম্পানি আপনার ওয়েবসাইটের সুরক্ষা খুব গুরুত্ব সহকারে নেওয়ার জন্য পরিচিত।  তারা সুরক্ষা সমস্যার জন্য সক্রিয়ভাবে ওয়ার্ডপ্রেস থিম এবং প্লাগইনগুলি নিরীক্ষণ করে। এবং প্রয়োজন মতো প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

  • ওয়ান সেন্ট্রাল ড্যাশবোর্ড: একটি সেন্ট্রালাইজড কন্ট্রোল প্যানেল আপনাকে আপনার সমস্ত ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটকে একটি অবস্থান থেকে পরিচালনা করতে দেয়। আপনি সহজেই এক ওয়েবসাইট থেকে অন্য ওয়েবসাইটে দ্রুত ডাটা ডেলিভারি করতে পারেন। এবং আপনার সমস্ত ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টলেশনের পরিসংখ্যান দেখতে পারেন।
আশাকরি আপনি বুঝতে পারছেন, ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যানেলের সাথে অনেকগুলো দরকারী বৈশিষ্ট্য সরবরাহ করে।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্যানেল পছন্দ করেন। তাহলে আপনি Namecheap অথবা BlueHost কোম্পানির কাছ থেকে হোস্টিং প্ল্যান ক্রয় করতে পারেন।

আমার পছন্দের সেরা কোম্পানি হচ্ছে ব্লু হোস্ট এবং দ্বিতীয় পছন্দ হচ্ছে নেম চিপ। নিচে দুটি কোম্পানির ওয়েবসাইট লিংক দিয়েছি:

এই দুটি কোম্পানির কাছ থেকে আপনি আপনার পছন্দের যেকোনো ডোমেইন ও হোস্টিং প্ল্যান সবচেয়ে কম দামে ক্রয় করতে পারেন।

Md Thouhidul Islam TAWHIDMd Thouhidul Islam TAWHID
প্রযুক্তিকে ভালোবাসি, তাই প্রযুক্তি নিয়ে লিখি। লেখার মাধ্যমে নিজে শিখি ও অন্যদের শেখানোর চেষ্টা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top